আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

আলিপুর হাটখোলায় অবস্থিত মরা,শুকনা, পোকায় খাওয়া শিরিজ গাছ দুটি এখন কোমল মতি শিক্ষার্থীসহ হাজার মানুষের মরণ ফাঁদ

মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন: আলিপুর হাটখোলায় অবস্থিত মরা,শুকনা, পোকায় খাওয়া শিরিজ গাছ দুটি এখন কোমল মতি শিক্ষার্থীসহ হাজার মানুষের মরণ ফাঁদ সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আলিপুর ইউনিয়ের আলিপুর হাটখোলা একটি জনবহুল এলাকা। প্রতিদিন সকালে এখানে মাছের সেট বসে এবং বিকালে বসে চাল-ডাল, তরি-তরকারি, মাছ ও মুদির বাজার। যে কারণে ভোর রাত থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত হাজার হাজার মানুষের আনাগনা থাকে এ এলাকায়। তাছাড়া এই বাজারের উপরে অবস্থিত একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়। পাশে গার্ল হাইস্কুল ও মহিলা কলেজ। অধিকাংশ শিক্ষার্থীদের চলাচলের একটাই পথ। এই চলাচলের পথে দীর্ঘদিন অন্তরায় হয়ে আছে রাস্তার দুপাশে অবস্থিত দুটি শিরিজ গাছ। গাছ দুটি প্রায় এক বছর আগে ভাইরাজ আক্রান্ত হয়ে মরে শুকিয়ে আছে। মাঝে মাঝে ছোট বড় ডাল ভেঙ্গে পড়ে। অল্পের জন্যে অনেক বেঁচে গেছে। জেলা পরিষদের এই গাছ দুটির মুল্য আনুমানিক দুই থেকে আড়াই লক্ষ্য টাকা। ছয় মাস আগে গাছ দুটি কেটে নিয়ে জনগনের চলার পথকে নির্বিঘ্ন করার জন্য এলাকাবাসী জেলা পরিষদে লিখিত আবেদন করলেও এখনও পর্যন্ত তাদের পক্ষ থেকে কোন রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। এদিকে শিক্ষার্থীসহ হাজার হাজার জনগন মৃত্যুর ভয় মনের মধ্যে নিয়ে এই গাছতলা দিয়ে চলাচল করছে। এই পথ দিয়ে চলার সময় মনে হবে এই বুঝি গাছ অথবা গাছের মোটা অংশ ভেঙ্গে তাদের উপর পড়ে তারা এখুনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়বে। এখানে শেষ নয়, এই গাছের নিচে চায়ের দোকান, ইলেকট্রনিক,মিস্ত্রির দোকান মুদির দোকান ম্যাকানিকের দোকান, নাপিতের দোকানসহ দশটি দোকান রয়েছে। ভয়ে ভয়ে তাদের দোকানদারি করতে হয়। দোকানে কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতাদের ও একই ভয়। প্রতিদিন বাজারে আসা মানুষ এবং স্কুল কলেজে আসা শিক্ষর্থীদের একটাই ভয় তারা অক্ষত অবস্থায় বাড়ি ফিরতে পারবে তো। নাকি এই মরা পোকায় খাওয়া গাছ তাদের উপর ভেঙ্গে পড়ে তাদের জীবন বাতি নিভিয়ে দিবে। নাকি তারা সারা জীবনের জন্য অন্যের বোঝা হয়ে যাবে। বড় কোন দুর্ঘটনা ঘটার আগে গাছ দুটির যথাযথ ব্যবস্থা করে কোমলমতি শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনগনের চলাচলের পথকে নির্বিঘ্ন করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার স্বচেতন মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: