আজ ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দেবহাটায় পিটিয়ে নাবালক ছেলেকে বাল্যবিয়ে দেয়ার প্রতিবাদে পিতার সংবাদ সম্মেলন

দেবহাটা প্রতিনিধি: দেবহাটায় আটকে রেখে মারপিট সহ সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে আরিফুল ইসলাম (১৭) নামের অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক ছেলেকে জোরপুর্বক স্বামী পরিত্যাক্তা মেয়ের সাথে বাল্যবিয়ে দেয়ার পাশাপাশি হয়রানীর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ছেলের পিতা মাসুম বিল্লাহ। তিনি উপজেলার সখিপুর ইউনিয়নের কোঁড়া গ্রামের ইসহাক আলীর ছেলে। রবিবার সকাল ১০টায় দেবহাটা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মাসুম বিল্লাহ বলেন, তার ছেলে আরিফুল ইসলাম অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক কিশোর। দীর্ঘদিন ধরে তাদের প্রতিবেশী ও কোঁড়া গ্রামের হান্নান সরদার তার স্বামী পরিত্যাক্তা মেয়ে হালিমা খাতুনকে (২৩) তার ছেলে আরিফুলের সাথে দ্বিতীয় বিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র করে আসছিলো। তার ছেলে সরল প্রকৃতির হওয়ায় সম্প্রতি হান্নান সরদার তার স্বামী পরিত্যাক্তা মেয়ে হালিমার সাথে তার ছেলে আরিফুলের ভালোবাসার সম্পর্ক রয়েছে বলে এলাকায় অপপ্রচার চালাতে থাকে। বিষয়টি নিয়ে শনিবার (৬ জুলাই) সন্ধ্যায় আব্দুল হান্নান তার পক্ষের কিছু লোকজনকে নিয়ে জোরপুর্বক এলাকায় একটি শালিসের আয়োজন করে। ফলে বাধ্য হয়ে তিনি ছেলে আরিফুলকে নিয়ে শালিসে উপস্থিত হওয়া মাত্রই শোনা বোঝার পরিবর্তে হান্নানের লোকজন তিনি ও তার ছেলেকে মারপিট শুরু করে। মারপিটের একপর্যায়ে তিনি ও তার ছেলে আরিফুলকে একটি সাদা কাগজে স্বাক্ষর করিয়ে নিয়ে একটি ঘরে ছেলেকে তালাবদ্ধ অবস্থায় আটকে রাখে। পরে তড়িঘড়ি করে স্থানীয় কোঁড়া জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন শহীদুল ইসলামকে দিয়ে অপ্রাপ্ত বয়স্ক ছেলে আরিফুলের সাথে জোরপুর্বক স্বামী পরিত্যাক্তা হালিমার বাল্য বিয়ে দেয়। ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হলে রাত আড়াই টার দিকে পাশ্ববর্তী এলাকার মেম্বর হাফিজুর রহমান ছেলে আরিফুলকে মেয়ের বাড়ী থেকে উদ্ধার করে আবার তার বাড়ীতে পৌছে দেয়। এঘটনার পর থেকে অদ্যবধি জোর করে স্বাক্ষর করিয়ে নেয়া ওই সাদা কাগজের ভয় দেখিয়ে ষড়যন্ত্রকারী মেয়ের বাবা হান্নান ও তার লোকজন বিভিন্নভাবে ছেলে আরিফুল এবং তার পরিবারের সদস্যদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো সহ ভয়ভীতি দেখিয়ে হয়রানী করে যাচ্ছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন অসহায় পিতা মাসুম বিল্লাহ। তাই জোর করে তার অপ্রাপ্ত বয়স্ক ছেলেকে পিটিয়ে নাটকীয়ভাবে বিয়ে দেয়ার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা সহ অব্যাহত ষড়যন্ত্র ও হয়রানী থেকে রেহাই পেতে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করেছেন তিনি।##

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: