আজ ৯ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

আশাশুনিতে অধ্যক্ষ মিজানুরের অপসারণের দাবীতে স্মারকলিপি প্রদান

বি এম আলাউদ্দীন বিশেষ প্রতিনিধি: আশাশুনিতে সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মিজানুরের অপসারণের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হলরুমে। নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজার মাধ্যমে শিক্ষা সচিবের কাছে আশাশুনি সরকারী কলেজের স্বেচ্ছাচারি, অনিয়মকারী, দুর্নীতিবাজ, অর্থ আত্মসাৎকারী অধ্যক্ষ মিজানুর রহমানের অপসারনের দাবীতে শিক্ষার্থীদের স্মারকলিপি প্রদান করেছে। কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি অনার্স ১ম বর্ষের ছাত্র আশরাফুজ্জামান তাজ, সাধারন সম্পাদক তানভির রহমান রাজ, ১ম বর্ষের ছাত্র নূূর মোহাম্মদ শান্ত, ২য় বর্ষের ছাত্র শাহারুল ইসলাম, ডিগ্রি ১ম বর্ষের ছাত্র আশরাফুজ্জামান শাওন, অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্র এমদাদুল ইসলাম, ছাত্র আল মামুন সহ কলেজের ছাত্ররা এই স্মারকলিপি প্রদান করে। শিক্ষা সচিব জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়, বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা বরাবর সরকারী কলেজের স্বেচ্ছাচারি, অনিয়মকারী, দুর্নীতিবাজ, অর্থ আত্মসাৎকারী অধ্যক্ষ মিজানুর রহমানের অবিলম্বে অপসারনের দাবী করেন। মহা পরিচালক মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর, শিক্ষা মন্ত্রীর একান্ত সচিব, শিক্ষা মন্ত্রনালয়, বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা। এছাড়া জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা, আঞ্চলিক পরিচালক, খুলনা বরাবর স্মারকলিপি প্রদানের অনুলিপি প্রদান করা হয়। প্রদানকৃত স্মারকলিপিতে জানা গেছে আশাশুনি সরকারী কলেজ একটি ঐতিয্যবাহী উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটির অগ্রযাত্রায় অত্র এলাকার বহু নামী দামী রাজনৈতিক , শিক্ষাবিদ, গুনি জন, সাংবাদিকবৃন্দ, সুশিল সমাজ ও সমাজ সেবীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। উল্লেখ্য ২০১৭ সালের ৯ জানুয়্রাী গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সদয় সম্মতি ও সাতক্ষীরা ৩ আসনের সংসদ সদস্য ডা. আ ফ ম রুহুল হকের একান্ত প্রচেষ্টায় কলেজটি জাতীয় করন হয়েছে। ৯০ দশকের জামাত শিবিরের এজেন্ডা বাস্তবায়নকারী অধ্যক্ষ মিজিানুর রহমান আশাশুনি সরকারী কলেজে যোগদানের পর থেকে সে একের পর এক দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাৎ, স্বেচ্ছাচারি ও অনিয়ম সহ একাধিক কর্মকান্ডে সাথে জড়িত। যে কারনে এই সুনামকৃত ঐতিয্যবাহী আশাশুনি সরকারী কলেজের ভাবমুর্তি ও সুনাম নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। কলেজটির সুনাম ধরে রাখতে অবিলম্বে দুুর্নীতিবাজ অধ্যক্ষের মিজানুর রহমানের অপসারন করা একান্ত প্রয়োজন বলে শিক্ষার্থীরাও দাবী করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: