আজ ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

” শ্যামনগরে শীর্ষ সন্ত্রাসী বনদস্যু আজাদ আবার ও বেপরোয়া-প্রকাশ্যে কোপাকুপিয়ে জখম “

শ্যামনগর প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার ৭ নং মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের যতীন্দ্রনগর গ্রামের, মৃত্যু জব্বার গাজীর পুত্র মোঃ আজাদ গাজী, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মৃঃ রউফ গাজীর পুত্র, মোঃ আব্দুল আলিম( ৫০) কে ধারালো কুড়াল দ্বারাঁঁ এলোপাতাড়ি কুপিয়েছে,

গত ইং- ৩০/ ০৭ / ১৯ মঙ্গলবার দুপুর বেলায় , আজাদ ও তার দুই পুত্র আশিক (২৮) এবং আনিছুর (২৪) আরও দুই/তিন জন সহ অপেক্ষায় ছিল দিনমজুর আলিম কাজের শেষে বাড়ি ফেরার পথে আক্রমণ করবে বলে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হত্যার উদ্দেশ্যে অমানবিকভাবে নির্দয়ের মতো কুপিয়েছে আব্দুল আলিমকে ৷ সাথে সাথে আঃ আলিমের স্বজনরা তাকে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে, তথ্য সূত্রে জানা যায় এই আজাদ গাজী একজন ভয়ানক সন্ত্রাসী এবং বনদস্যু, তার বেপরোয়া তাণ্ডবে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী- এবং জেলে বাওয়ালীরা ৷ তার বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে, খুন-জখমের হুমকি দেন তিনি৷ এই শীর্ষ সন্ত্রাসী আজাদের বিরুদ্ধে একাধিক পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলেও , হয়নি তার কোনো প্রতিকার ৷ তথ্যনুসন্ধানে আরো জানা যায়, মাদক সেবন করে মাতাল হয়ে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মানুষের উপর আক্রমণ করে থাকেন তিনি, কিন্তু এই আজাদ বাহিনীর ভয়ে কেউ মুখ খুলতে চান না, ২০১৪ সালে এই আজাদের বিরুদ্ধে র‍্যাব ব্যাটেলিয়ান -৬ এর কাছে, তার অপরাধ জানিয়ে নালিশ দিয়েছিলেন তৎকালীন সময়ের ৭ নং মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, এবং, ইউপি সদস্য বৃন্দ ও গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ৷ কিন্তু আজ অব্দি নির্বিঘ্নে তার সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছেন এমনটা জানালেন গ্রামবাসী ৷ আব্দুল আলিম এর উপর অমানবিক নির্যাতনে আতঙ্কগ্রস্ত এলাকাবাসী ৷ সাধারণ মানুষের প্রশ্ন ইতিপূর্বে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ হওয়া সত্ত্বেও একাধিক জায়গায় অভিযোগ করার সত্ত্বেও কিভাবে তার সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে? এ রিপোর্ট লেখা অবদি মামলার প্রস্তুতি চলছিলো ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!