আজ ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

আশাশুনিতে ভিজিএফ’র চাউলসহ আটক-১

বিশেষ প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউনিয়নে পুলিশ অভিযান চালিয়ে চোরাই পথে বিক্রয়ের লক্ষ্যে পাচারকৃত ভিজিএফ এর চাউলসহ বৃহস্পতিবার রাতে একজনতে গ্রেফতার করেছে। স্থানীয়রা জানান, খাজরা ইউনিয়নসহ আশপাশের ইউনিয়নগুলোতে ভিজিএফ এর চাউল বিতরণ করা হচ্ছে। ৩০ কেজি ওজনের দু’ বস্তা চাউল মটর সাইকলে করে পাচারের সময় আঃসবুরের পুত্র আরিফ গাজীকে আটক করে পুলিশ। এরপর আরও দু’জনের বাড়ি থেকে আরো ৮ বস্তা চাউল উদ্ধার করা হয়। এসময় বিপদ বুঝতে পেরে পাচারকারীরা আরো ১৭ বস্তা চাউল পুকুরে ও ডোবায় ফেলে দেয়। বৃহষ্পতিবার রাত আটটা থেকে ১০টা পর্যন্ত পুলিশ খাজরা ইউনিয়নের কাপসন্ডা গ্রামে এ অভিযান চালায়। প্রত্যক্ষদর্শী কাপসন্ডা গ্রামের রায়হান উদ্দিন খোকা, সাকিল হোসেন, আলতাফ হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেনসহ কয়েকজন জানান, পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে ভিজিএফ কার্ডে দুস্থ পরিবার পিছু ১৫ কেজি করে চাল স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিতরনের জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়। অথচ স্থানীয় পরিচিত কয়েকজন রাতের আঁধারে শতাধিক বস্তা চাল কালো বাজারে বিক্রির জন্য আত্মসাৎ করেন। খবর পেয়ে আশাশুনি থানার এসআই বিল্লাল হোসেন ও এসআই মামুনুর রশিদের নেতৃত্বে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালান হয়। এ সময় কাপসন্ডা ফুলবল মাঠের পাশে মোটর সাইকেলে রাখা তিন বস্তা চালসহ সবুর গাজীর ছেলে আরিফ গাজীকে আটক করেন। úরে কাপসন্ডা দক্ষিণপাড়ার আজিম উদ্দিনের বাড়ি থেকে তিন বস্তা, জামাল উদ্দিন সানার বাড়ি থেকে দু’ বস্তা, সামাদ সরদারের ছেলে ফারুক সরদারের বাড়ি থেকে তিন বস্তা চাল উদ্ধার করেন পুলিশ। গরীব মানুষের চাল বিশেষ শ্রেণির সুবিধাভোগীরা পাওয়ায় পুলিশের কাছে ক্ষোভ ব্যক্ত করেছেন সাধারণ মানুষ। খাজরা ইউপি চেয়ারম্যান শাহানেওয়াজ ডালিম সাংবাদিকদের বলেন, যাদের কাছ থেকে চাল পাওয়া গেছে তারা কোথা থেকে ওই চাল পেয়েছে তা তার জানা নেই। এব্যাপারে থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: