আজ ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দেবহাটায় মাদ্রাসার সভাপতির দুর্নীতি, প্রতিষ্ঠাতা ও দাতা সদস্যদের মারপিটের ঘটনার প্রতিবেদন চেয়েছে বামাশিবো

মাহমুদুল হাসান শাওন,দেবহাটা: দেবহাটার পারুলিয়া আহছানিয়া মাদ্রাসার স্বঘোষিত দুর্নীতিবাজ সভাপতি শরিফুল ইসলাম বুলু ও তার ভাই আজহারুলের দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় মাদ্রাসাটির প্রতিষ্ঠাতা ও দাতা পরিবারের সদস্যদের ফিল্মি স্টাইলে পিটিয়ে জখম, মাদ্রাসা তহবিলের অর্থ আত্মসাত, রেজুলেশন জালিয়াতি, নিয়োগ বানিজ্য সহ সীমাহীন দুর্নীতি অনিয়মের ঘটনায় বিতর্কিত কমিটি বাতিলের জন্য দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে সরেজমিনে তদন্ত পরবর্তী মতামত সহ প্রতিবেদন চেয়েছে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড (বামাশিবো)। গত ৩০ শে জুলাই বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের রেজিষ্টার সিদ্দিকুর রহমান ও উপ রেজিষ্টার ওমর ফারুক স্বাক্ষরিত (স্মারক নং- বামাশিবো/প্রশা/২৩৩১৯১১৮৬৩৮১/২২৮৭/৩/ নথি নং- সাত ১১০) এক লিখিত পত্রে দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীনকে বিতর্কিত ম্যানেজিং কমিটির স্বঘোষিত সভাপতি শরিফুল ইসলাম বুলুর সীমাহীন দুর্নীতি ও মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও দাতা পরিবারের সদস্যদের মারপিটের ঘটনার সরেজমিনে তদন্ত করে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডে প্রতিবেদন দাখিলে জন্য বলা হয়েছে। উল্লেখ্য যে, চলতি বছরের ২৭ এপ্রিল শনিবার দুপুরে মাদ্রাসা চলাকালীন সময়ে মাদ্রাসার অফিস কক্ষে দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও দাতা পরিবারের আজীবন সদস্য ফজিলা খাতুন, হুমায়ুন কবির রাজু, ইব্রাহিম সরদার মিলন ও জাহাঙ্গীর আলম বাচ্চুকে ফিল্মি স্টাইলে অফিসের চেয়ার দিয়ে পিটিয়ে জখম করে দুর্নীতিবাজ স্বঘোষিত সভাপতি শরিফুল ইসলাম বুলু, তার ভাই বহুল আলোচিত আজহারুল ইসলাম সহ তাদের সাঙ্গপাঙ্গরা। এছাড়াও ২০১০ সাল থেকে এ পর্যন্ত মাদ্রাসার উন্নয়নে দাতা পরিবারের দেয়া জমির হারী থেকে প্রাপ্ত প্রায় ১০ লক্ষ টাকা আত্মসাত সহ মাদ্রাসার শিক্ষক ও দাপ্তরিক সহ ৫টি পদের নিয়োগে কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ারও অভিযোগ রয়েছে দুর্নীতিবাজ সভাপতি শরিফুল ইসলাম বুলু ও তার ভাই আজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে। এসব দুর্নীতি-অনিয়মের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ার পাশাপাশি প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেলা প্রশাসক, বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে দুর্নীতিবাজ সভাপতি শরিফুল ইসলাম বুলু ও তার ভাই আজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে একাধিকবার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মাদ্রাসাটির প্রতিষ্ঠাতা ও জমিদাতা আজীবন সদস্য ফজিলা খাতুন, জাহাঙ্গীর আলম বাচ্চু ও ইব্রাহিম সরদার মিলন। সর্বশেষ মাদ্রাসার সুপার আমিনুর রহমান বাদী হয়ে স্বঘোষিত ওই সভাপতি শরিফুল ইসলাম বুলু’র বিরুদ্ধে সীমাহীন দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাত এবং মাদ্রাসাটির প্রতিষ্ঠাতা ও জমিদাতা আজীবন সদস্যদের মারপিটের ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত সহ বিতর্কিত ম্যানেজিং কমিটি বাতিলের জন্য বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে সরেজমিনে তদন্ত করে মতামত সহ প্রতিবেদন দাখিল করতে অনুরোধ জানিয়েছে বোর্ড কতৃপক্ষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: