আজ ১০ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দেবহাটায় যুবককে হত্যাচেষ্টা মামলার আসামীরা এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে!

দেবহাটা প্রতিনিধি:: পুর্ব শত্রুতার জের ধরে তরিকুল ইসলাম (২৭) নামের এক যুবককে মাথায় ছুরিকাঘাত করে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলেও, মামলার আসামী অপহরন, মারপিট, মাদক ব্যবসা সহ বহু অপকর্মের হোতা আবু সুফিয়ানকে এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনার ভিকটিম তরিকুল ইসলাম দেবহাটা উপজেলার পুর্ব কুলিয়া গ্রামের আবু বক্কার গাজীর ছেলে। পুর্ব শক্রতার জের ধরে গত ১৬ সেপ্টেম্বর প্রয়োজনীয় কাজ শেষে বাড়ী ফেরার সময় পুর্ব কুলিয়ার রহিমের রাইচ মিলের সামনে পৌছালে তরিকুল ইসলামের ওপর ৪/৫ জন সন্ত্রাসীর দলবল নিয়ে হামলা চালায় গোবরাখালী গ্রামের আসাফুর সরদারের বখাটে ছেলে ও এলাকার বহু অপকর্মের হোতা আবু সুফিয়ান। সন্ত্রাসীদের উপুর্যপরী মারপিটের একপর্যায়ে সুফিয়ান ধারালো ছুরি দিয়ে তরিকুলের মাথায় খুঁচিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। ছুরিকাঘাতের সময় স্থানীয়রা ঘটনার মুলহোতা সুফিয়ানকে হাতেনাতে ধরে কুলিয়ার স্থানীয় ইউপি সদস্য প্রেম কুমারের কাছে হস্তান্তর সহ রক্তাক্ত অবস্থায় তরিকুলকে উদ্ধার করে প্রথমে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি এবং পরবর্তীতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। কিন্তু সেখানেও অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকদের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য তরিকুলকে ঢাকার একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে ঘটনার সময় সুফিয়ানকে আটক করে ইউপি সদস্যের কাছে হস্তান্তর করা হলেও, ইউপি সদস্য প্রেম কুমার তাৎক্ষনিক কোন ব্যবস্থা না নিয়ে বা আটককৃত সুফিয়ানকে পুলিশের কাছে সোপর্দ না করে বরং পালিয়ে যেতে সহায়তা করে বলেও অভিযোগ ভুক্তভোগী পরিবারের। অন্যদিকে ছুরিকাঘাতে আহত তরিকুল ইসলাম ঢাকায় চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষনে থাকাকালীন ঘটনার দুদিন পরে ১৮ সেপ্টেম্বর তার বাবা আবু বক্কার গাজী বাদী হয়ে সন্ত্রাসী আবু সুফিয়ানকে প্রধান আসামী সহ সুফিয়ানের বাবা আসাফুর রহমান ও অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জনকে আসামী করে পেনাল কোডের ১৪৩, ৩২৩, ৩২৬, ৩০৭ ও ৩৭৯ ধারামতে দেবহাটা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন (মামলা নং- ০৮, তাং- ১৮/০৯/১৯)। কিন্তু চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ও মামলা দায়েরের পর দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও অজ্ঞাত কারনে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের মুলহোতা আবু সুফিয়ান বা ঘটনাটির সাথে জড়িত কাউকেই আটক করতে পারেনি দেবহাটা থানা পুলিশ। আর পুলিশের গ্রেপ্তার এড়িয়ে কথিত আত্মগোপনে থাকা সুফিয়ান সহ অপর আসামীরা বর্তমানে ভিকটিম যুবক তরিকুল ও তার বাবা মামলার বাদী আবু বক্কার গাজীকে বিভিন্নভাবে হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগী পরিবারের। তবে মামলার প্রধান আসামী আবু সুফিয়ানকে গ্রেপ্তারে পুলিশের নিয়মিত অভিযান চলছে বলে দাবী করেছেন মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা দেবহাটা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই নয়ন চৌধুরী।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: