আজ ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে সাংবাদিক শাহীন আলমের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের আর কত মিথ্যা অভিযোগ দিলে খ্যান্ত হবে মহাদেব বাহিনী

::সদর প্রতিনিধি::

এলাকার সহজ সরল ব্যক্তিদের লাঞ্চিত করার প্রতিবাদ করা, বিভিন্ন প্রকার অন্যায়, দূর্ণীতি, মিথ্যা মামলার বাদী সাজিয়ে সহজ সরল ব্যক্তিদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার মত ঘৃর্ণীত কাজের স্বচিত্র প্রতিবেদন পত্র পত্রিকার শিরোনামে প্রকাশ করায় এবং একই ওয়ার্ডে আগামীতে ইউপি সদস্য হিসেবে প্রতিদ্বন্দি প্রার্থী হওয়ায় প্রশাসনের ৮টি দপ্তরে সাংবাদিক শাহীন আলমের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছেন মহাদেব বাহিনী। এলাকার গরীব, দুখী, অসহায়, নির্যাতিত, নিপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের সর্বাত্বক সহায়তা করা, এলাকার সমস্যা, সম্ভাবনা ও বর্তমান সরকারের উন্নয়নের স্বচিত্র প্রতিবেদন পত্রিকার মাধ্যমে সকলকে অবগতির জন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন সাংবাদিক এস এম শাহীন আলম। সত্য ঘটনার সংবাদ প্রকাশ করা এবং আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ১৪নং ফিংড়ী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার ঘোষনা দেওয়ায় অত্র ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মহাদেব কুমার ঘোষ ও তার দলবল সাংবাদিককে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন ও মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর জন্য ফিংড়ী ইউনিয়নসহ পাশ্ববর্তী উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের বিভিন্ন ধরণের সহজ সরল মানুষদের স্বাক্ষর জাল জালিয়াতি করে এবং উক্ত স্বাক্ষরনামা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাতক্ষীরা জেলা শাখার উর্দ্ধতন নেতাকর্মীদের দেখিয়ে উক্ত অভিযোগ পত্রে তাদের সুপারিশ নিয়ে শাহীন আলমের বিরুদ্ধে প্রশাসনের ৮টি দপ্তরে চাঁদাবাজী ও দূর্ণীতির মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেন। এর মধ্যে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগের তদন্ত সদর থানার ধুলিহর-ব্রহ্মরাজপুর পুলিশ ফাঁড়িতে উভয় পক্ষের উপস্থিতিতে অভিযোগের তদন্ত করলে সাংবাদিক শাহীন আলমের বিরুদ্ধে করা সকল অভিযোগ মিথ্যা বলে প্রমানিত হয়। এসময় স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে স্বাক্ষীদের কাছে তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই হাসানুর রহমান উক্ত অভিযোগ পত্রে স্বাক্ষর ও সাংবাদিক শাহীন আলমের সাথে অর্থ লেনদেন হয়েছে কিনা, একে একে উপস্থিত সকলের কাছে জানতে চাইলে কেউ সঠিক জবাব দিতে পারেননি। ঘটনার তদন্তকালে ফিংড়ী ইউপি চেয়ারম্যান সামছুর রহমান, ফিংড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি লুৎফর রহমান, ব্যাংদহা বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক শেখ মোনায়েম হোসেন, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুস সাত্তার, যুবলীগ সভাপতি সেলিম হোসেন টুটুল, ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি হুমায়ন কবীর, সহ সভাপতি আব্দুল হামিদ, আ’লীগ নেতা লোকমান হোসেন, আব্দুল হামিদ ঢালী, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হোসেন লিটন, ওয়ার্ড আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস সহ ফিংড়ী, ধুলিহর, ব্রহ্মরাজপুর ও বুধহাটা ইউনিয়নের প্রায় ২শতাধিক সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন। লিখিত অভিযোগের তদন্ত রিপোর্টে প্রকাশ পায় যে, উক্ত অভিযোগ পত্রে অধিকাংশ অভিযোগকারীর স্বাক্ষর নকল বা জাল জালিয়াতি। এমনকি অভিযোগের বিষয়টিও তারা জানেন না। তদন্ত কর্মকর্তা এস আই হাসানুর রহমানের জিজ্ঞাসাবাদে সাংবাদিক শাহীন আলমের কর্তৃক কোন অভিযোগকারীর কাছে চাঁদা দাবী করা হয়েছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে উক্ত অভিযোগকারীরা সঠিক জবাব বা ঘটনার সত্যতা প্রমান করতে পারেননি। শুধু এখানেই শেষ নয় ৮টি দপ্তরে অভিযোগের পরে নতুন করে সাংবাদিক শাহীন আলমকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসাতে মহাদেব বাহিনীর অন্যতম সদস্য হাবাসপুর গ্রামের মৃত তোফাজুদ্দীন সরদারের ছেলে একাধিক বিবাহের হোতা নাসিরউদ্দীন পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগের পর আবারও সাংবাদিক শাহীন আলমসহ তার সাথে থাকা অন্যান্য নিরীহ ব্যক্তিদের নাম উল্লেখ করে সাতক্ষীরা বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আরেকটি মামলা দায়ের করেছে বলে জানাগেছে। শাহীন আলমের সাথে থাকা অত্র এলাকার সহজ সরল, নিরীহ ব্যক্তিদের মিথ্যা মামলা দেওয়া সহ হাত ও পা ভেঙ্গে দেওয়ার হুমকি ও বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ উঠেছে মহাদেব বাহিনীর ক্যাডারদের বিরুদ্ধে। এমতাবস্থায় উক্ত মিথ্যা অভিযোগ থেকে পরিত্রান ও উক্ত মহাদেব বাহিনী কর্তৃক মিথ্যা অভিযোগের শাস্তি মূলক ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার সচেতন মহল।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: