আজ ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দেবহাটা কলেজের সভাপতিকে লাঞ্চিতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি, ১০ দিনের মধ্যে কলেজের ৯ লক্ষাধিক টাকা ফেরতের নির্দেশ

দেবহাটা প্রতিনিধি:

দেবহাটা কলেজের সভাপতি, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সাধারন সম্পাদক ও সাংবাদিক আলী মোর্ত্তজা মো. আনোয়ারুল হককে কলেজের বিএনপি পন্থী প্রভাসক মির্জা মহসীন কতৃক লাঞ্চিতের ঘটনার তদন্তে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন সহ কলেজ জাতীয় করনের নামে শিক্ষকদের থেকে আদায় পরবর্তী আত্মসাতকৃত ৯ লক্ষাধিক টাকা আগামী ১০ দিনের মধ্যে শিক্ষক-কর্মচারী তহবিলে ফেরত দিতে আত্মসাতকারী দুই প্রভাষক মির্জা মহসীন ও মোহাম্মাদ আলীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। শনিবার সকাল ১০টায় দেবহাটা কলেজের বিরাজমান পরিস্থিতি নিয়ে অনুষ্ঠিত জরুরী সভায় এ সিদ্ধান্ত জানান কলেজটির পরিচালনা পর্ষদের নেতৃবৃন্দরা। কলেজটির ম্যানেজিং কমিটির বিদ্যুৎসাহী সদস্য উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভাটিতে দেবহাটা কলেজের অধ্যক্ষ একেএম আনিসুজ্জামান, সাবেক অধ্যক্ষ আনিসুর রহমান, অবিভাবক প্রতিনিধি শফিকুল ইসলাম, তপন কুমার, শিক্ষক প্রতিনিধি প্রভাষক হাফিজুর রহমান, প্রভাসক আবু তালেব, প্রভাষক আলমগীর কবির সহ কলেজ পরিচালনা পর্ষদের অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। এসময় জরুরী সভার আলোচনায় উঠে আসে দেবহাটা কলেজ নিয়ে বিরাজমান পরিস্থিতি, সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা আলী মোর্ত্তজা মো. আনোয়ারুল হককে লাঞ্চিতের ঘটনা, কলেজটির বর্তমান ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে কলেজেরই বিএনপি পন্থী এক গ্রুপের ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার এবং কলেজ জাতীয় করনের নামে শিক্ষক কর্মচারী তহবিলের ৯ লক্ষাধিক টাকা আত্মসাত সহ নানা বিষয়। এসময় কলেজের বিরাজমান পরিস্থিতি থেকে উত্তরনের জন্য কলেজের সভাপতি পদ নিয়ে উচ্চ আদালতের দেয়া রায় মোতাবেক পরবর্তী কার্যক্রম পরিচালনা সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পাশাপাশি কলেজের বর্তমান সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা আলী মোর্ত্তজা মো. আনোয়ারুল হককে বিএনপি পন্থী প্রভাষক কতৃক লাঞ্চিতের ঘটনার তদন্তে উপস্থিত সভার সভাপতি শেখ ফারুক হোসেন রতনকে প্রধান সহ বিদ্যুৎসাহী সদস্য নাজমুস শাহাদাত, বিদ্যুৎসাহী সদস্য অধ্যক্ষ আনিসুর রহমান, অবিভাবক সদস্য তপন কুমার ও শিক্ষক প্রতিনিধি প্রভাষক আলমগীর কবিরকে সদস্য করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটি সরেজমিনে তদন্ত পরবর্তী ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করবে বলেও সভায় সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়া সভার অন্যতম আলোচিত বিষয় হিসেবে কলেজ জাতীয় করনের নামে শিক্ষক কর্মচারী পরিষদের থেকে আদায়কৃত ৯ লক্ষাধিক টাকা কলেজের দুই প্রভাষক মির্জা মহসীন ও মোহাম্মাদ আলী কতৃক আত্মসাতের ঘটনাটি নিয়ে ব্যপক আলোচনা হয়। আলোচনা শেষে আগামী ১০ দিন অর্থাৎ ৬ নভেম্বরের মধ্যে আত্মসাতকৃত সমুদয় টাকা কলেজটির শিক্ষক কর্মচারী পরিষদের তহবিলে ফেরত দেয়ার জন্য প্রভাষক মির্জা মহসীন ও মোহাম্মাদ আলীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে সভা শেষে জানিয়েছেন সভায় উপস্থিত পরিচালনা পর্ষদের নেতৃবৃন্দরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: