আজ ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরায় কাউন্সিলর না করায় সাধারণ সম্পাদককে খুন জখমের হুমকি

আল মাহফুজ:: আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর না করায় ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আছাদুজ্জামানকে খুন জখমের হুমকি দিয়েছে তার দলে আরেক নেতা আব্দল হাকিম। এবিষয়ে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আছাদুজ্জামান বলেন, আমাদের পৌর আওয়ামী লীগের ভোটের জন্য যে কাউন্সিলর লিস্ট তৈরী হয়েছে তাতে হাকিমের নাম না থাকায় সে আমাকে খুন জখমের হুমকি দিচ্ছে। কেন তার নাম নেই এবিষয়ে জানতে চাইলে আছাদুজ্জামান জানান, সংগঠনের নিয়ম অনুযায়ী কাউন্সিলর হতে হলে পৌর সভাপতি, সাধারণ সম্পদকের সাক্ষর ও ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের সাক্ষর প্রয়োজন কিন্তু কেউ তার পক্ষে সাক্ষর করেনি। তাছাড়া তার নামে একাধীক মামলা রয়েছে। দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ রয়েছে তার নামে। কিছুদিন আগে তার নামে চাঁদাবাজির মামলা হয়েছে পালাতক ছিল এতদিন। আমি নিজেও তার নামে অনেক বার লিখিত ও মৈাখিক অভিযোগ করেছি সিনিয়র নেতাদের কাছে। দলের অনেক সদস্য তাকে বহিস্কারের দাবি জানিয়েছেন। এবিষয়ে ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান জানান, হাকিম সাধারণ সম্পাদক কে খুন জখমের হুমকি দিয়েছে ঘটনা সত্যতা স্বিকার করে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক কেন্দ্রো থেকে তৃনমূল পর্যন্ত সব ইউনিটে ত্যাগী ও ক্লিন ইমেজের নেতাদের মুল্যায়ন করার কথা বলেছেন। তারই ধারা বাহিকতায় হাকিম কাউন্সিলর হতে পারেনি। তাছাড়া তার নামে বিভিন্ন মিডিয়ায় যেসব নিউজ প্রকাশ হয়েছে তাতে প্রমান হয় যে হাকিম সাংগঠনিক বিরোধী কাজে জড়িত থাকেন। এবং সে একজন অনুপ্রবেশ কারী। দল যাকে মনে করবে তাকে দিবে। সরকারী কলেজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল কলাম বলেন,হাকিম আমার এলাকার লোক আওয়ামী লীগের সহসাধারণ সম্পাদক হওয়ার পর সে ছোট বড় সবার সাথে খারাপ আচারণ করে। ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন, আমি শৈরাচার বিরোধী আন্দলনের সময় থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজ নীতির সাথে জড়িত।

দলে কোন ধরণের অনুপ্রবেশকারী চাঁদাবাজ থাকতে পারবেনা। এটা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বারবার বলছেন। টিভি খুললেই আমরা দেখতে পাই দলে কাদের রাখা যাবে কাদের রাখা যাবে না। ১৫আগষ্ঠের টাকা আত্তÍসাধ সহ তার নামে রয়েছে বহু অভিযোগ। বিভিন্ন সময়ে তিনি প্রশাসনের কর্মকর্তা বিভিন্ন সংবাদ কর্মীর সাথে অসৈজন্য মুলক আচারণ করেণ । তার মত লোক যদি আওয়ামী লীগের পদে আসে তবে এলাকা ও দলের সুনাম নষ্ট হবে বলে জানান। আমিসহ দলের অনেক নেতাকর্মীরা তার বহিস্কারের দাবি জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: