আজ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে খুলনায় সমাবেশ

সাবেক প্রধানমন্ত্রী  বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবীতে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে খুলনা মহানগর ও জেলা বিএনপি আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, জনগণের ম্যান্ডেট ছাড়াই ডে-নাইট ইলেকশানে ভোট কেটে ব্যালট বাক্স ভরে ক্ষমতা জবরদখল করেছে বর্তমান সরকার। অবৈধ সরকারের নিষ্ঠুর প্রতিহিংসার শিকার হয়ে আজ দীর্ঘদিন কারাবন্দী ৩ বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে রাজনৈতিক জীবনে ৫ বারের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশের সবক’টি বিভাগ থেকে মোট ২৩ টি আসনে নির্বাচিত দেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া।

মিথ্যা বানোয়াট ঘষামাজা নথির ভিত্তিতে মামলায় তাঁকে সরকার আজ ৬৬৮ দিন বন্দী করে রেখেছে, যা অত্যন্ত অমানবিক এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।
সকল মামলায় একের পর এক জামিন পেলেও সর্বোচ্চ আদালতকে নজীরবিহীনভাবে ব্যবহার করে সর্বশেষ ২ টি মামলায় নানান অপকৌশল করে তাঁর জামিন প্রাপ্তি দীর্ঘায়্ত করছে সরকার।

প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতির বক্তৃতায় নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন,  দেশে চলছে উন্নয়নের নামে লাগামহীন দুর্নীতি, দু:শাসনে বিপর্যস্ত রাষ্ট্র, হাজার হাজার কোটি দুর্নীতিলব্ধ টাকা সরকারী দলের নেতা ব্যবসায়ীরা বিদেশে পাচার করে দিয়েছে, ব্যাংকগুলি নি:স্ব হয়ে গেছে, অর্থনীতি খোবলা হয়ে গেছে, সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলি সরকারের নগ্ন হস্তক্ষেপে নিষ্ক্রিয় হয়ে জনপ্রত্যাশার বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। নির্বিচার দু:শাসনে বাংলাদেশে কেউ আজ নিরাপদ নয়। আর এসব দুষ্কর্ম নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করা এবং ক্ষমতাকে অবৈধভাবে দীর্ঘায়িত কুটকৌশলের অংশ হিসেবে বেগম খালেদা জিয়াকে সরকারই ষড়যন্ত্রমূলকভাবে বন্দী করে রেখেছে।

পেঁয়াজ চালসহ প্রায় প্রতেকটি নিত্যপণ্যের বাজার সাধারণের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে। দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন বৃদ্ধিতে জনগণের নাভিশ্বাস উঠেছে, অথচ সরকার তার ব্যর্থতা ঢাকতে প্রতিদিন এরমধ্যে বিএনপি’র ষড়যন্ত্রের পুরনো অচল বস্তাপচা গল্প ফাঁদছে। দেশের মানুষের দুর্গতি আর হাহাকারের মধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রী বিদেশে ছিলেন, স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী  বিনোদনমূলক এয়ারশো উপভোগ করতে দুবাই ভ্রমণ করেছেন। সরকারের মন্ত্রীদের নানাবিধ বালখিল্য মার্কা কথাবার্তায় এখন আর মানুষের আলাদা করে বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান দেখার প্রয়োজন পড়ে না।

এই দু:সহ অবস্থা থেকে জনগণকে মুক্তি দিতে হলে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ব্যতীত আর কোন গত্যন্তর নেই। দেশের স্বার্থে গণতন্ত্রের স্বার্থে খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনকে বেগবান করতে রাজপথেই এর সমাধান খুঁজতে হবে। দেশকে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির অবস্থা থেকে বাঁচাতে হলে অবিলম্বে দেশনেত্রীকে মুক্তি দিতে হবে বলে সমাবেশ থেকে জোর দাবী জানানো হয়।
রবিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন
বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু।

সভায় কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা অাঃ মান্নান। সভায় বক্তৃতা করেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, শাহারুজ্জামান মোত্তুজা, মীর কায়সেদ অালী, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ অাঃ রশিদ, এড. ফজলে হালিম লিটন, সিরাজুল হক নান্নু, সাইফুর রহমান মিন্টু, কামরুজ্জামান টুকু, মোল্লা মোশাররফ হোসেন মফিজ, খায়রুল ইসলাম জনি, রেহানা ঈসা, নাজমুল হুদা সাগর, একরামুল হক হেলাল, মোল্লা কবির হোসেন, শরিফুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।  প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: