আজ ৩রা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরায় অভিনব কায়দায় চুরি, চোর সিন্ডিকেটের সদস্য জনতার হাতে আটক

ফিরোজ হোসেন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরার খুলনা রোড সংলগ্ন ডক্টর্স লাব’র সামনে থেকে সুকৌশলে মটর চালিত ভ্যান চুরির ঘটনায় স্থানীয় জনতার হাতে রাজু শেখ (৩২) নামে এক চোর আটক হয়েছে।মঙ্গলবার(১০ই ডিসেম্ব) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এঘটনাটি ঘটে। আটককৃত চোর সিন্ডিকের সদস্য রাজু (৩২)কয়রার আমাদী বেড়িয়াডাঙ্গা গ্রামের সামছুর শেখের পুত্র।
সুত্র জানাযায়, সাতক্ষীরা সদরের ছঘরিয়া গ্রামের আমির আলীর পুত্র সেলিম (৩৫) প্রতিদিনের ন্যায় রুটি রুজীর সন্ধানে
কদমতলা বাজারে আসে। সেখান থেকে ধৃত চোর সিন্ডিকেটের সদস্যরা ভ্যানচালক সেলিমকে ডক্টর্স ল্যাব থেকে কম্বল নিয়ে যাওয়ার কথা বলে ভাড়া করে নিয়ে আসে। ভ্যান চালক সেলিম জানান হাসপাতালের সামনে এসে ভ্যানে তালা দিতে গেলে ওরা বলে সাথে আমাদের লোক যাচ্ছে, আমরা নিচে আছি।তখন

মটরসাইকেলে থাকা ওরা তিন জনের একজন আমার সাথে নিয়ে ডক্টর্স লাবের দ্বিতীয় তলায় কম্বল নিতে আসলে আমি পেছনে তাকায় দেখি আমার সাথে পিছে থাকা সে ব্যক্তি নেই। পরক্ষনেই দ্বিতীয় তলা থেকে দেখি সাথে থাকা লোকটা আমার ভ্যান নিয়ে দ্রুত গতিতে চালিয়ে যাচ্ছে। আমি দৌড়ে পেছনে চোর আমার ভ্যান নিয়ে যাচ্ছে বলে চিৎকার দিলে ভ্যান চোরকে স্থানীয় জনতা তাড়িয়ে ধরে মোজাহার তৈল পাম্প এলাকা থেকে আটক করে।পরে জনতা কাটিয়া পুলিশ ফাড়িতে চোর রাজুকে সোপর্দ করে । এবং মটর সাইকেলে থাকা চোর সিন্ডিকেটের সদস্যরা পালিয়ে যায়।
এদিকে ধৃত চোরকে আটকের ঘটনা জানতে পেরে মোকন্দপুর গ্রামের মৃত আঃ রাজ্জাক’র পুত্র শাহিনুর কাটিয়া পুলিশ ফাড়ীতে জানান আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে সাতক্ষীরা জর্জকোট এলাকা থেকে সে আমার ভ্যান কৌশলে চুরি করে নিয়ে যায়। অপরদিকে শহরের কাটিয়া মাঠপাড়া এলাকার মৃত জামাল হোসেনের পুত্র ডালিম জানান, গত সপ্তাহে ধৃত চোর রাজু ও তার অপর সহযোগী সদর হাসপাতালের সামনে থেকে তার মাকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার কথা বলে একজন আমাকে নিয়ে সদর হাসপাতালের ভেতরে রোগী আনতে গেলে বাইরে থাকা মটর সাইকেলে থাকা সিন্ডিকেটের সদস্যরা ভ্যান নিয়ে যায়। এবং আমার সাথে যাওয়া ব্যক্তিও পেছন থেকে পালিয়ে যায়।
এদিকে কিছুদিন আগে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের সামনে থেকে একটি ইজিবাইক চুরির ঘটনা ঘটে। শহরের এভাবে দিনের পর দিন চুরীর ঘটনা ঘটলেও চোর সিন্ডিকেটের মূল হোতারা রয়েছে ধরা ছোয়ার বাইরে। এঘটনায় কাটিয়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মিজানুর রহমান জানান চোর চক্রের মূল সদস্য প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এ বিষয় সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত
কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান চোর সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: