আজ ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার স্বাক্ষী বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম খানকে সম্মাননা প্রদান

মাহমুদুল হাসান শাওন, দেবহাটা: স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যা মামলার একমাত্র জীবিত স্বাক্ষী, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম খানকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০ টায় দেবহাটার সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজ হলরুমে দরদি সমাজসেবা ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মুখে বিজয়ের গল্পগাঁথা ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা’ শীর্ষক অনুষ্টানে তাকে সম্মাননা জানানো হয়। অনুষ্ঠানটিতে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে মুক্তিযুদ্ধকালীন ও ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার লোমহর্ষক ঘটনা বর্ণণা করেন বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার একমাত্র জীবিত স্বাক্ষী, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম খান। পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধ কালীন সময়ে নিজের অবস্থান নিয়ে লেখা ‘মুক্তিযুদ্ধ এবং আমি’ বইটির বিভিন্ন অংশ পড়ে শোনান তিনি। খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজের অধ্যক্ষ রিয়াজুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং দরদি সমাজসেবা ফাউন্ডেশনের সভাপতি আব্দুল্যাহ আল মামুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানটিতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেবহটা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ্ব আব্দুল গনি, নুরুল ইসলাম খানের ছেলে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মিড নাইট সানের সভাপতি নাজিবুল ইসলাম খান, সুইডেনে মানবতার কল্যানে নিয়োজিত শাহনাজ খান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি আবু রাহান তিতু, দেবহাটার ডেপুটি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ইয়াছিন আলী, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওহাব, হাজী কেয়ামদ্দীন মেমোরিয়াল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম, খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক হারুন-অর-রশিদ, এ্যড. ইউনুস আলী প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার স্বাক্ষী নুরুল ইসলাম খানের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল গনি সহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দরা। এছাড়া একই সময়ে দেবহাটা উপজেলা থেকে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধা তালিকায় স্থান পাওয়া কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: