আজ ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরার সাদিকসহ ৪ জন অস্ত্র মামলার রিমান্ড শুনানী শেষে জেল হাজতে প্রেরণ

স্টাফ রিপোর্টার: সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাদিকুর রহমান, পিচ্চি রাসেল, সাম্মী হাসান সোহাগ ও আজিজুল ইসলামকে সদর থানার পৃথক দু’টি অস্ত্র মামলায় দু’ দিনের রিমা- শুনানী শেষে রোববার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। সাতক্ষীরা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক হারান চন্দ্র পাল জানান, শহরের মুনজিতপুরের সৈয়দ মোখলেছুর রহমানের ছেলে জেলা ছাত্রলীগের সদ্য বহিষ্কুত সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাদিকুর রহমান ও একই এলাকার জহুরুল ইসলামের ছেলে পিচ্চি রাসেলকে সদর থানার ৩১ নং অস্ত্র মামলায় ২৬ ডিসেম্বর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম রেজোয়ানুজ্জামান দু’দিনের রিমা- মঞ্জুর করেন। একই দিনে একইভাবে সদর থানার ৮৮ নং মামলায় (অস্ত্র) শ্যামনগরের নবাকী গ্রামের আরশাদ আলীর ছেলে আজিজুল ইসলাম ও সাতক্ষীরা শহরের মেহেদীবাগের এসএম আনিছুর রহমানের ছেলে সাম্মী হাসান সোহাগকে দু’দিনের রিমা- মঞ্জুর করেন একই আদালতের বিচারক। ৩১ নং মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা ছিলেন তিনি নিজে ও ৮৮ নং মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা ছিলেন গোয়েন্দা পুলিশের উপ পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম। শুক্রবার বিকেলে তাদেরকে জেলা কারাগার থেকে তাদের কার্যালয়ে আনা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রোববার দুপুর একটার দিকে তাদের চারজনকেই আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়। তাদের কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য মিলেছে।
তবে সাদিকুর রহমানকে দু’ ইউপি চেয়ারম্যানের দায়েরকৃত পর্ণগ্রাফির মামলায় মঞ্জুর হওয়া রিমা- শুনানীর জন্য যে কোন সময় জেলখানা থেকে গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে আনা হবে বলে পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে। উল্লেখ্য, গত ৩১ অক্টোবর সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের পাওখালিতে বিকাশ এজেন্টের ২৬ লাখ টাকা ছিনতাই ঘটনায় গত ১৮ ডিসেম্বর ঢাকার কলাবাগান থেকে গ্রেফতার হন জেলা ছাত্রলীগের সদ্য বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাদিকুর রহমান ও উত্তর পলাশপোলের সুমাইয়া আক্তার সুমি। এই মামলা ছাড়াও তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে একটি এবং নারী লোভ দেখিয়ে ভিডিও ধারন করে ব্লাক মেইলিং করে আশাশুনির প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন ও সদর উপজেলার ঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান মোশার কাছ থেকে যথাক্রমে পাঁচ লাখ ও চার লাখ করে টাকা আদায়ের ঘটনায় ১৫ ডিসেম্বর সদর থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়। এ ছাড়া অস্ত্র ও ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার হওয়া পিচ্চি রাসেল ও হাফিজুর রহমান বাবু গ্রেপ্তার হওয়ার ঘটনায় গোয়েন্দা পুলিশের উপ পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম বাদি হয়ে অস্ত্র ও মাদক আইনে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেন ১৪ ডিসেম্বর। এ ছাড়া কালিগঞ্জের বিকাশ এজেন্ট এর ২৬ লাখ টাকা ছিনতাই এর ঘটনায় সাদিক আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। আকাশ ও সুমি পৃথক মামলায় আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: