আজ ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দেবহাটা ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্রের ম্যানেজার দিপঙ্করের দুর্নীতির তদন্তে কমিটি গঠন করা হবে-ইউএনও

দেবহাটা প্রতিনিধি: জনপ্রশাসন পদকপ্রাপ্ত ইছামতি নদীর কোল ঘেষে সুন্দরবনের আদলে নির্মিত রূপসী দেবহাটা ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্রটির অব্যবস্থাপনা ও ম্যানেজার দিপঙ্কর ঘোষের সীমাহীন দুর্নীতি, অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা এবং অর্থলোপাটের ঘটনার খবর প্রকাশে জেলাব্যাপী তোলপাড় শুরু হয়েছে। রবিবার একাধিক স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিক পত্রিকাসহ অনলাইন নিউজ পোর্টালে ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্রের দায়িত্বরত ম্যানেজার দিপঙ্কর ঘোষের বিরুদ্ধে পর্যটন কেন্দ্রটি হরিলুট করে প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার খবর প্রকাশিত হলে সর্বত্রই তোলপাড় শুরু হয়। সকাল থেকে সংশ্লিষ্ট হকারদের কাছ থেকে আগ্রহ সহকারে পত্রিকা কিনে সংবাদটি পড়েছেন পাঠকরা। এমনকি পত্রিকার নির্ধারিত কপি শেষ হলে উপজেলা চত্বর এলাকায় অনেককে দেখা গেছে সংবাদটি ফটোকপি করে পড়তে। শুধু বাইরের পাঠক নয়, প্রকাশিত সংবাদটির জন্য পত্রিকার একাধিক কপি সংগ্রহ করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের অফিস সহকারী থেকে শুরু করে বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও। পাশাপাশি বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের জন্য সংশ্লিষ্ট পত্রিকার সম্পাদক-প্রকাশক সহ প্রতিবেদককে ধন্যবাদ জানিয়েছেন উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক, সাংষ্কৃতিক ও উন্নয়নমুখী সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। আর সংবাদটি পড়ে চলমান দুর্নীতি অনিয়মের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পর্যটন কেন্দ্রটির প্রতিষ্ঠালগ্নে দায়িত্বরত তৎকালীন দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বর্তমান শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের উপ সচিব আ.ন.ম তরিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, বহু প্রতিকুলতা উপেক্ষা করে ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্রটি সেসময়ে স্থাপন করা হয়েছিলো। দীর্ঘ সময় পর আজ যখন পর্যটন কেন্দ্রটি দেশব্যাপী পরিচিতি লাভ ও জনপ্রশাসন পদক পেয়েছে, ঠিক তখন এধরনের চলমান দুর্নীতি-অনিয়মের ঘটনা খুবই দুঃখজনক। এদিকে সংবাদ প্রকাশের পর দুর্নীতি-অনিয়ম ও অর্থলোপাটের মাধ্যমে ম্যানেজার দিপঙ্কর ঘোষ কর্তৃক পর্যটন কেন্দ্রটি ক্রমশ ধ্বংসের দারপ্রান্তে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরীন বলেন, দুর্নীতি করে কারো ছাড় পাওয়ার সুযোগ নেই। সংবাদে উত্থাপিত প্রত্যেকটি অভিযোগ তদন্ত করা হবে। শীঘ্রই অভিযোগের তদন্তে কমিটি গঠন করা হবে। তদন্ত কমিটি গুরুত্বসহকারে অভিযোগের তদন্ত করে প্রতিবেদন দিলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। পাশাপাশি ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্র নিয়মিত নজরদারি ও তদারকির আওতায় আনা হবে বলেও জানান তিনি। এদিকে দুর্নীতি-অনিয়মের খবর প্রকাশের পর রীতিমতো গাত্রদাহ শুরু হয়েছে দুর্নীতিবাজ ম্যানেজার দিপঙ্কর ঘোষের। অপকর্ম ঢাকতে বিভিন্ন মহলে দৌড়ঝাপ সহ তদবিরের মিশনে নেমেছেন তিনি। সংবাদ প্রকাশের আগে ও পরে বিভিন্ন লোক দিয়ে সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদকের কাছে মোবাইল ফোনেও তদবির চালিয়েছেন তিনি। সর্বপরি সকল চেষ্টা ব্যার্থ হলে এখন তার পকেটস্থ সাংবাদিকদের দিয়ে পত্রিকায় প্রতিবাদ ও নিজের সম্পর্কে ভালো খবর ছাপিয়ে কালো জামা সাদা করার ছক কষছেন ম্যানেজার দিপঙ্কর। তবে তার সকল অপচেষ্টাকে পেছনে ফেলে যাবতীয় দুর্নীতি, অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিত ও অর্থলোপাটের ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত পরবর্তী ম্যানেজার দিপঙ্কর ঘোষের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা সহ দেবহাটা তথা সাতক্ষীরার সম্পদ রূপসী ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্রটি রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীন ও জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামালের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন উপজেলার সকল শ্রেনী পেশার মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: