আজ ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দেবহাটায় অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রকে তিন ঘন্টা বেঁধে রেখে নির্যাতন

মাহমুদুল হাসান শাওন, দেবহাটা: দেবহাটায় পানের বরজ থেকে কয়েকটি পানপাতা ছেড়ার অপরাধে মোস্তাফিজুর রহমান (১৩) নামের অষ্টম শ্রেনীতে পড়ুয়া এক ছাত্রকে পিটমোড়া করে তিন ঘন্টা বেঁধে বিভিন্ন এলাকায় ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে নির্যাতন করেছেন পান বরজের মালিক ও কর্মচারীরা। শুক্রবার বিকাল ৫টা থেকে শিশু মোস্তাফিজুরকে পিটমোড়া করে বেঁধে বেধড়ক মারপিট সহ নির্মম শারিরীক নির্যাতন চালানো হয়। পরে রাত ৮টার দিকে অনেক খোজাখুজির পর সখিপুর মোড়ের সিরাজুলের চায়ের দোকান থেকে অসুস্থ অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার পরবর্তী দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্বজনরা। শিশু মোস্তাফিজুর সখিপুর গ্রামের শেখ শফিকুল ইসলামের ছেলে ও চাঁদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্র। শিশুটির শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারপিট ও জখমের চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। শিশু মোস্তাফিজুর ও তার স্বজনরা জানান, শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে খেলার সময় বাড়ীর পাশে থাকা নারিকেলি গ্রামের ভোনাই সরদারের ছেলে সমর সরদারের পানের বরজ থেকে কয়েকটি পানপাতা ছেড়ে শিশু মোস্তাফিজুর। এসময় পান ছেড়ার অপরাধে মোস্তাফিজুরকে আটক পরবর্তী গামছা দিয়ে পিটমোড়া করে বেঁধে মারপিট করতে শুরু করে পান বরজের মালিক সমর সরদার, কর্মচারী চাদপুর গ্রামের মফিজউদ্দীনের ছেলে আশরাফুল সহ তার লোকজন। পরে মারপিট শেষে পিটমোড়া করে বাঁধা অবস্থায় মোটর সাইকেল যোগে প্রথমে ঈদগাহ বাজার ও পরে গাজীরহাট বাজার এবং সর্বশেষ সখিপুরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে নির্যাতন শেষে সখিপুর মোড়ে সিরাজুলের চায়ের দোকানে আটকে রাখে। এদিকে অনেক খোজাখুজির পর মোস্তাফিজুরে খুজে না পেয়ে একপর্যায়ে তাকে মারপিট ও নির্যাতনের বিষয়টি জানতে পারে শিশুটির পরিবার। একপর্যায়ে রাত ৮টার দিকে সখিপুর মোড়ের সিরাজুলের চায়ের দোকান থেকে মোস্তাফিজুরকে তার পরিবারের সদস্যরা উদ্ধার পরবর্তী অসুস্থ অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এব্যাপারে পান বরজের মালিক সমর সরদারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে খুজে পাওয়া যায়নি। এমনকি তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, বিষয়টি নিয়ে এখনো কেউ থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি। তবে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: