আজ ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দেবহাটার শীর্ষ মাদক ও হুন্ডি ব্যবসায়ী সাইফুল বেপরোয়া, পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা

দেবহাটা প্রতিনিধি: দেবহাটার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ও হুন্ডি ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম ওরফে ফেন্সি সাইফুল (৩০) বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। সে দেবহাটা উপজেলার সখিপুর খেজুরবাড়ীয়া গ্রামের শাহিদা বেগমের ছেলে। দীর্ঘদিন ধরে ওই গ্রামে সাইফুল তার নানা মৃত আব্দুল গফফারের বাড়ীতে থাকার সুবাদে রমরমা ফেন্সিডিল, বিদেশী মদ, গাঁজা, ইয়াবাসহ মাদকের রমরমা পাইকারী ও খুচরা ব্যবসা চালিয়ে আসছে। সাম্প্রতিক সময়ে বেশ জমজমাট হয়ে উঠেছে ফেন্সি সাইফুলের মাদক ও হুন্ডির ব্যবসা। প্রতিরাতেই উপজেলার সীমান্ত এলাকা ভাঁতশালার ইছামতি নদী পার করে ভারত থেকে বস্তাভর্তি ফেন্সিডিল ও বিদেশী মদ নিয়ে এসে কৌশলে জেলা ও জেলার বাইরে বিভিন্ন স্থানে মাদকের বড় চালান পাঠিয়ে আসছে সাইফুল। সম্প্রতি মাদক ব্যবসায়ী সাইফুলের পাঠানো ফেন্সিডিলের চালানসহ খুলনার অন্যতম মাদক ব্যবসায়ী শেখ রানা খুলনা জেলা ডিবি পুলিশের হাতে আটক হওয়ার পর সাইফুল সম্পর্কে বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য। শুধু সাতক্ষীরা বা খুলনা নয়, রাজধানী ঢাকা, চট্রগ্রাম, রাজশাহী সহ বিভিন্ন স্থানেও ফেন্সিডিল ও বিদেশী মদের চালান পাঠিয়ে আসছে সে। পাশাপাশি এলাকাতেও প্রতিনিয়ত তার নির্ভরযোগ্য লোকদের মাধ্যমে কৌশলে ফেন্সিডিল, মদ, গাঁজা ও ইয়াবা বিক্রি করছে সাইফুল। ফলে সাইফুলের বিক্রিত মাদক দ্রব্যের আসক্তিতে ক্রমশ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে পৌছেছে সখিপুর, পারুলিয়া, কুলিয়া সহ পাশ্ববর্তী এলাকার যুবসমাজ। একই সাথে এসব এলাকায় দিনদিন বেড়েই চলেছে চুরি, ছিনতাই, ইভটিজিং সহ নানা অপরাধ মুলোক কর্মকান্ড। এলাকার কয়েকজন মাদকসেবী পরিচয় গোপন রাখার শর্তে জানান, নিয়মিত সাইফুলের মাধ্যমে মাদকের যোগান ও চাহিদা মিটছে তাদের। তারা আরো বলেন, হাতের কাছে পাচ্ছি তাই মাদক খাচ্ছি। যখন পাবোনা তখন আর খাবোনা। শুধু মাদকদ্রব্য নয়, বর্তমানে হুন্ডির মাধ্যমে অবৈধভাবে বাংলাদেশ থেকে ভারতে অর্থ পাচার করে চলেছে সাইফুল। সম্প্রতি সাইফুল দেবহাটার সীমান্ত এলাকার এক চোরাকারবারীর প্রায় কোটি টাকা হুন্ডির মাধ্যমে ভারতে লেনদেন করে। তবে দীর্ঘদিন ধরে মাদক ও হুন্ডির রমরমা ব্যবসা চালিয়ে আসলেও অজ্ঞাত কারনে সাইফুলকে গ্রেপ্তারে কোন পদক্ষেপ নেয়নি পুলিশ প্রশাসন। মাদক ও হুন্ডির ব্যবসার বিষয়ে জানতে চাইলে প্রথমদিকে অভিযোগ অস্বীকার করলেও পরবর্তীতে সত্যতা নিশ্চিত করে মাদক ব্যবসায়ী সাইফুল বলেন, পুলিশ-প্রশাসন আমার কিছ্ইু করবে না। আমি সবখানে চুক্তি করেই ব্যবসা করছি। আপনারা চাইলে আপনাদের সাথেও চুক্তি করবো। এব্যাপারে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, মাদক ও হুন্ডি ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এধরনের অপরাধ কর্মকান্ডে জড়িত থাকলে অবশ্যই সাইফুলকে গ্রেপ্তারসহ আইনের আওতায় আনা হবে। এলাকার যুবসমাজকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা ও অপরাধ কর্মকান্ড রোধে চিহ্নিত মাদক ও হুন্ডি ব্যবসায়ী সাইফুলকে গ্রেপ্তারের জন্য দেবহাটা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শেখ ইয়াছিন আলী ও সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী। 

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: