আজ ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কয়রার গোলখালীতে পর্যটন কেন্দ্র পরিদর্শন করলেন এমপি ও পর্যটন সচিব

কয়রা প্রতিনিধি: কয়রায় সুন্দরবনের পাড়ে গোলখালী পর্যটন কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন কয়রা পাইকগাছার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আকতারুজ্জামান বাবু ও বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিঃ সচিব মহিবুল হক। এর আগে বিগত ৬ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব বাবু কয়রার গোলখালীতে পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনের জন্য সিদ্ধান্ত প্রস্তাব উত্থাপন করলে সংলিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী কয়রাতে পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনের আশ্বাস প্রদান করেন। খুলনা শহর থেকে ১২৫ কিলোমিটার দূরে সুন্দরবনের পাশে শাকবাড়ীয়া আর কপোতাক্ষ ও আড়পাঙ্গাসিয়া নদীর মিলনস্থল কয়রা উপজেলার গোলখালী গ্রামের সিংয়ের চরে ২০০ একর জমিতে পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনের দাবী দীর্ঘ দিনের। কিন্তু রাজনৈতিক জটিলতার কারনে উক্ত পর্যটন কেন্দ্রের কার্যক্রম পিছিয়ে গেলেও এখন তাহা দ্রুত বাস্তবায়ন হবে এমনটি ধারনা কয়রা বাসীর। উল্লেখ্য ১৯৯৯ সালে গোলখালীতে পর্যটন বিষয়ক আন্তর্জাতিক মহাসচিব ২ বার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এখানে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার প্রস্তাব করেন। কিন্তু পরবর্তীতে বিএপি জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর এ বিষয়ে রাজনৈতিক উদ্যোগের অভাব্ ে২ যুগ আগের প্রস্তাবিত গোলখালী পর্যটন কেন্দ্রের কাজ ঝিমিয়ে পড়ে। তবে বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের এ এলাকার সংসদ সদস্য বিষয়টি নিয়ে জাতীয় সংসদে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে দৌড়-ঝাপ করলে পর্যটন মন্ত্রনালয়ের টনক নড়ে। সূত্র জানায় তারই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার মাননীয় এমপি ও বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন সচিব গোলখালী ও তার আশে পাশে সুন্দরবন সংলগ্ন একাধিক এলাকা পরিদর্শন করেছেন। মাননীয় এমপি মহোদয় জানান, গোলখালীর সিংয়ের চরে পর্যটন কেন্দ্র স্থাপন হলে ৩ টি নদীর মোহনা এবং ৩ দিকে গভীর সুন্দরবন থাকায় পর্যটকদের আকর্ষণ করবে। তিনি বলেন, গোলখালী হবে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র এবং বিভাগীয় শহর থেকে সরাসরি গাড়ী ও লঞ্চে করে এখানে আসা যাওয়া করা যাবে এবং এখানে অত্যন্ত প্রশস্ত নদী থাকায় সেখানে সী প্লেন উঠা-নামা করতে পারবে। যে কারনে তিনি কয়রার অবহেলিত ও লোনা পানির মানুষগুলোকে উন্নয়নের দারপ্রান্তে পৌছে দিতে গোলখালীতে পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও সরকারের উচ্চ মহলে চেষ্ঠা করছেন বলে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: