আজ ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরায় করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় মানুষের চোখেমুখে সতর্কতার ছাপ।থমকে গেছে জনজীবন

মোঃ খলিলুর রহমান সাতক্ষীরা::

করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর হঠাৎ করেই সব কিছু বদলে গেছে। সাতক্ষীরা জেলা অনেকটা থমকে গেছে। জনকোলাহল এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে। চার দিকে মানুষের চোখে মুখে সতর্কতার ছাপ। প্রভাব পড়েছে বাজারে। খেলার মাঠে। বিনোদন কেন্দ্রগুলো। নিত্যপণ্যের বাজারেও আতঙ্কের ছায়া। স্থগিত হয়েছে ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান। সাতক্ষীরার পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে আসছেন না কোন পর্যটকরা। করোন মোকাবেলায় ঝাপিয়ে পড়েছে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশ। বন্ধ করে দিয়েছে জেলার সব কয়টি পর্যটন কেন্দ্র, সিনেমা হল, গণ জামায়ত, ওয়াজ মাহফিল, নামযজ্ঞসহ সকল প্রকার ধর্মীয় অনুষ্ঠান। নিজের পরিবারের সুরক্ষায় মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হ্যান্ডওয়াশ কিনতে ভিড় করছেন দোকানে। কেউ পাচ্ছেন, কেউ পাচ্ছেন না। গণপরিবহনে যাত্রী তুলনামূলক কম। যারা যাচ্ছেন, তাদের অনেকের মুখে মাস্ক। ব্যাংকসহ আর্থিক প্রতিষ্ঠানে কমেছে ভিড়। হাসপাতালে আসা রোগী ও স্বজনরা সতর্ক। শপিং মলে আসা ক্রেতারাও চলছেন সতর্ক হয়ে। বন্ধ হয়ে গেছে সন্ধ্যার পর আড্ডা বিলাসী মানুষের চলাফেরা। এদিকে গতকাল সাতক্ষীরার ব্যস্ততম এলাকা, নিউ মার্কেট, বাসটার্মিনাল, শপিং মল, গণপরিবহনে অন্য দিনের চেয়ে কম সমাগম দেখা গেছে। বাস টার্মিনালে যাত্রীদের মাঝে সতর্কতার চিত্র দেখা গেছে।অনেকের মুখে ছিল করোনার আলোচনা। সাতক্ষীরার গণপরিবহনে যাতায়াতকারী যাত্রীদের অনেককে মুখে মাস্ক ব্যবহার করতে দেখা যায়। এদিকে জেলার সবকিছু বন্ধ হয়ে যাওয়াতে বিপাকে পড়েছে সাতক্ষীরার খেঁটে খাওয়া কৃষক, শ্রমিক ও রিক্সাচালকরা। রিক্সা চালকরা জানান করোনা ভাইরাস নিয়ে সব কিছু বন্ধ হয়ে গেছে, বিপদে পড়েছি আমরা, সারাদিন রিক্সা চালিয়ে যে কয় টাকা উপার্জন করি রিক্সা মালিক কে কি দেব আর আমি কি খাবো। আমরা বাসায় বসে কিভাবে আমাদের সংসার চালাবো। সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জেলা পুলিশের ফেসবুক পেইজে লাইভে এসে বলেন, পুলিশ জনগণের বন্ধু, পুলিশ করোনা মোকাবেলায় সাধারণ মানুষের সাথে সবসময় থাকবে। আপনারা সবাই সচেতন থাকবেন, নিয়মিত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করবেন। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল জেলারে সকলকে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে জানান, করোন মোকাবেলায় আমাদের সাতক্ষীরা জেলার যে চার জন সংসদ সদস্য আছেন তারা সব সময় আমাদেরকে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এবং সর্বস্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ, সর্বস্তরের জনপ্রতিনিধিবৃন্দ ও বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এ করোনা ভাইরাসের মত মহামারী বিপদের মধ্যে এগিয়ে এসেছেন। আপনারা সবাই সচেতন থাকবেন, নিয়মিত সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করবেন। আপনার সবাই ভালো থাকলে আমরা ভালো থাকবো।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: