আজ ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ৩ লাখ

চীনের উহান থেকে শুরু হওয়া প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনায় আক্রান্ত হয়ে বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর সংখ্যা তিন লাখ ছাড়িয়েছে। মৃত্যুর এই সংখ্যায় পৌঁছতে ভাইরাসটির সময় লেগেছে সাড়ে চার মাস।
বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস নিয়ে সার্বিক তথ্য সরবরাহ করা ওয়ার্ল্ডোমিটার শুক্রবার সকালে জানায়, বিশ্বে তিন লাখ তিন হাজার ৩৭১ জনের মৃত্যু হয়েছে কোভিড-১৯ এ। একইসঙ্গে আক্রান্ত শনাক্তের সংখ্যা হয়েছে ৪৫ লাখেরও বেশি মানুষ। আর ১৭ লাখেরও বেশি মানুষ সুস্থ হয়েছেন।
২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষের দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে মানবদেহে করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রথম ঘটনা শনাক্ত হয়। তার প্রায় এক মাস পর প্রথম মৃত্যুটি চীনে ঘটেছিল ১১ জানুয়ারি।
চীনের বাইরে প্রথম মৃত্যুটি ঘটেছিল প্রায় এক মাস পর ২ ফেব্রুয়ারি ফিলিপাইনে। সেদিন মোট মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৩৬২।
মৃতের সংখ্যা হাজার ছুঁয়েছিল ১০ ফেব্রুয়ারিতে। অর্থাৎ প্রথম মৃত্যুর পর মৃতের সংখ্যা ১ হাজারে পৌঁছতে লেগেছিল ঠিক এক মাস। এরপর মৃতের সংখ্যা দুই হাজারে যেতে সময় লাগে ৮ দিন। তার এক মাস পর ১৯ মার্চ মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়ায়। এরপর ইউরোপে কাবু হয়ে যাওয়ায় লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে মৃত্যু। প্রতিদিন প্রায় ৫ হাজার মৃত্যু ঘটতে থাকে। ইউরোপের পর আমেরিকায় বিপর্যয় নামিয়ে আনে করোনাভাইরাস।
উহানে প্রাদুর্ভাবের ৯০ দিন পর গত ১০ এপ্রিল কোভিড-১৯ মহামারিতে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা লক্ষ ছুঁয়েছিল। তার আট দিন পর ৫০ হাজার মানুষের মৃত্যু এই সংখ্যাকে দেড় লাখ ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। তার পরের ৫০ হাজারের মৃত্যু ঘটতে সময় লেগেছিল সাত দিন।
মৃতের সংখ্যা আড়াই লাখে উন্নীত হতে এরপর আরও আট দিন লেগেছিল। তার ১০ দিন পর মৃতের সংখ্যা আরও ৫০ হাজার বাড়ল। শুক্রবার সকালে ওয়াল্র্ডও মিটারের হালনাগাদ করা তথ্য বলছে, বিশ্বে কোভিড-১৯ রোগে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ তিন হাজার ৩৭১। এই মৃত্যুর প্রায় এক-তৃতীয়াংশই ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। আর মৃত্যুর প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ ঘটেছে ইউরোপে।
মৃতের সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে ৮৬ হাজার ৯১২ জন মারা গেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের পরের অবস্থানে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩৩ হাজার ৬১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৩৩ হাজার ১৫১ জন।
মৃত্যুর তালিকার তৃতীয় অবস্থায় রয়েছে ইউরোপের দেশ ইতালি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩১ হাজার ৩৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ২৩ হাজার ৯৬ জন।
এরপরের অবস্থানেই রয়েছে স্পেন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২৭ হাজার ৩২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকে অবশ্য ২য় অবস্থানে রয়েছে এ দেশটি। এখানে ২ লাখ ৭২ হাজার ৬৪৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।
এদিকে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে রাশিয়ায়। আক্রান্তের হিসাবে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে দেশটি। এখানে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৫২ হাজার ২৪৫ জন, মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৩০৫ জনের।
বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণের পর বৃহস্পতিবার নতুন আক্রান্ত এক হাজার ৪১ জন। এ নিয়ে বাংলাদেশে মোট আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ১৮ হাজার ৮৬৩ জন। আর এখন পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ২৮৩ জন। এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৩৬১ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!