আজ ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কলকাতায় আঘাত হানছে আম্পান, বন্ধ ঘোষণা বিমানবন্দর

প্রবল শক্তি নিয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আরও কাছে চলে এসেছে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। ভারতের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় আম্পানের অবস্থান ছিল কলকাতা থেকে ২৬০ কিলোমিটার দূরে।

সে সময় পশ্চিমবঙ্গের দিঘা থেকে ১৫০ কিলোমিটার এবং ওডিশার পারাদ্বীপ থেকে ১২০ কিমি দূরে অবস্থান ছিল এই ঝড়ের। গত ৬ ঘণ্টায় ২২ কিমি বেগে উত্তর ও উত্তর-পূর্ব অভিমুখে স্থলভাগের দিকে এগিয়ে আসছে আম্পান।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বুধবার বিকাল ৪ থেকে সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে ঘূর্ণিঝড়টি আঘাত হানতে পারে।

ওডিশ্যা এবং পশ্চিমবঙ্গ থেকে চার লাখের বেশি মানুষকে ইতোমধ্যেই নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের দিঘা এবং বাংলাদেশের হাতিয়া দ্বীপে ঘূর্ণিঝড়ের সময় ১৮৫ কিলোমিটার বেগে বাতাস বয়ে যেতে পারে। ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কায় বাংলাদেশ এবং ভারতের নিচু এলাকা থেকে ২০ লাখের বেশি মানুষকে ইতোমধ্যেই নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

এদিকে, কলকাতা বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৫টা পর্যন্ত বিমানবন্দর বন্ধ থাকবে। পশ্চিমবঙ্গের সাত জেলায় সরাসরি আঘাত হানতে পারে আম্পান।

আলিপুরের আবহাওয়া দফতর বলছে, এর মধ্যেই কিছুটা শক্তি হারালেও প্রবল শক্তি নিয়েই দিঘা থেকে বাংলাদেশের হাতিয়া দ্বীপের মধ্যবর্তী কোনও অঞ্চলে বুধবার বিকাল অথবা সন্ধ্যার মধ্যে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে এই ঘূর্ণিঝড়ের।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, সাগরদ্বীপ হয়ে সুন্দরবনকে কেন্দ্র করে আছড়ে পড়তে পারে আম্পান। পূর্ব মেদিনীপুর এবং দুই ২৪ পরগনাতেও সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলবে এই ঝড়। সেই সঙ্গে হবে প্রবল জলোচ্ছ্বাসও। এই তিন জেলার উপকূলে চার থেকে ৬ মিটার পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাসের সম্ভাবনা রয়েছে।

মঙ্গলবার রাত থেকেই দিঘাতে শুরু হয়েছে বৃষ্টি। সেই সঙ্গে প্রবল গতিতে ঝোড়ো হাওয়া বইছে। তীব্র গতিতে বাতাস বয়ে যাচ্ছে কলকাতা এবং দুই ২৪ পরগনাতেও। সঙ্গে বৃষ্টিও হচ্ছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘূর্ণিঝড়ের গতি আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

facebook sharing button
twitter sharing button
linkedin sharing button
sharethis sharing button

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: