আজ ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৮ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

খুলনায় রোগীর স্বজনদের হামলায় চিকিৎসকের মৃত্যু! – জনতার মিছিল

অনলাইন ডেস্কঃ

খুলনায় রোগীর স্বজনদের হামলায় আহত এক চিকিৎসকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

নিহতের নাম – ডা. মো. আব্দুর রকিব খান (৬০)। তিনি নগরীর গল্লামারী মোড় এলাকার রাইসা ক্লিনিকের মালিক বলে জানা গেছে। এছাড়া বাগেরহাট মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট টেনিং স্কুলের (ম্যাটস) অধ্যক্ষ ছিলেন তিনি।

প্রসূতির মৃত্যু জেরে ওই চিকিৎসকের ওপর হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছে নিহতের স্বজন ও রাইসা ক্লিনিকের কর্মীরা।

সূত্র জানায়, সোমবার রাতে রোগীর স্বজনদের হামলায় গুরুতর আহত হন ডা. মো. আব্দুর রকিব খান। এ সময় তার মাথায় প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। তাকে দ্রুত শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ঘটনা বর্ণনা দিয়ে ডা. রকিবের ছোট ভাই সাইফুল ইসলাম জানান, গত ১৪ জুন বটিয়াঘাটা উপজেলার মোহাম্মদনগর এলাকার পল্লবী সড়কের আবুল আলী শেখের স্ত্রী শিউলি বেগম রাইসা ক্লিনিকে সিজারের মাধ্যমে সন্তান প্রসব করেন। কিন্তু শিউলি বেগমের রক্তক্ষরণ বন্ধ না হওয়ায় সোমবার তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তারা ওই রোগীকে ঢাকায় পাঠানোর জন্য অ্যাম্বুলেন্সে তুলে দেন। কিন্তু পথেই ওই প্রসূতি শিউলির মৃত্যু হয়।

ওই অ্যাম্বুলেন্সে করেই শিউলির মরদেহ নিয়ে ওইদিন রাত ৮টার দিকে রাইসা ক্লিনিকে আসেন তার স্বজনরা। এরপর ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর অভিযোগ তুলে তারা ক্লিনিকের সামনে ডা. রকিবকে ব্যাপক মারধর করে চলে যায়। এসময় ডা. রকিবের মাথায় জখম হয়।

রাত ২টার দিকে ডা. রকিবকে প্রথমে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার সকালে শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় তাকে। ওই হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীর অবস্থায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

আবু নাসের হাসপাতালের পরিচালক ডা. বিধান চন্দ্র গোস্বামী জানান, মাথায় আঘাতের কারণে ডা. রাকিবের মস্তিস্কে রক্তক্ষরণ হয়েছে। এ কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম বাহার বুলবুল বলেন, ডা. রকিবের মৃত্যুর খবর শুনে ঘটনাস্থল রাইসা ক্লিনিক পরিদর্শন করেছি। ডা. রকিবের স্বজনরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সূত্রঃ যুগান্তর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!