December 3, 2023, 1:56 pm

কালিগঞ্জে ছাত্রীকে কু প্রস্তাবের অভিযোগে শিক্ষক বহিষ্কার

 

শিমুল হোসেন নিজস্ব প্রতিবেদক

 

কালিগঞ্জে ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব দেয়ার অভিযোগে শিক্ষক আতিকুর রহমান বহিষ্কার, স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় তিনি জেল হাজতে। ভুক্তভোগীদের দাবী অভিযুক্ত শিক্ষককে স্থায়ী বহিস্কারের। সে রতনপুর তারকনাথ বিদ্যাপীঠের শিক্ষক।

অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, স্কুলের ছাত্রীসহ একাধিক নারী ঘঠিত ব্যাপারে অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই শিক্ষককে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল রহমান ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, রতনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলিম আল রাজি টোকন। আতিকুর রহমান (৪১) রতনপুর ইউনিয়নের কাশিশ্বরপুর গ্রামের মৃত জি এম হাবিবুর রহমানের ছেলে। তার প্রথম স্ত্রী নাজমুন নাহার সুমার দায়ের করা মামলায় বর্তমানে জেল হাজতে আছেন বলে জানাগেছে। সুমার সাথে গক ১২/০৭/২০০৬ ইং তারিখে ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক রেজিস্ট্রি করিয়া বিবাহ হয়। নানান লাঞ্চনা গঞ্জনা সহ্য করার পরেও স্ত্রী এবং তিন সন্তানকে রেখে সে দুই সন্তানের জননীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। স্ত্রী সুমা বলেন সংসার সন্তান ফেলে আবার বিয়ে করার বিষয়টি আমি জানতে পেরে প্রতিবাদ করলে আমাদের সকলকে বেদম মারপিট শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে বাড়ি থেকে বাহির হয়ে যাওয়ার জন্য হুমকি ধামকি দিতে থাকে। এক পর্যায়ে সু বিচারের আশায় বিজ্ঞ বিচারক জেলা জজ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে ০৫/০৯/২০২৩ তারিখে মামলা দায়ের করি, মামলা নং ২৯৭/২০২৩। এই মামলায় আমার স্বামী শেখ আতিকুর রহমান ঐ মামলায় বর্তমানে জেল হাজতে আছেন। এছাড়া নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক অভিভাবক ও রতনপুর তারকনাথ বিদ্যাপীঠের শিক্ষক জানান, তারই বিদ্যাপীঠ এর একাধিক ছাত্রীকে কু প্রস্তাব দেয়ায় বিষয়টি নিয়ে হৈ চৈ শুরু হয়ে যায়। এনিয়ে ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তে বিতর্কিত শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। ঐ বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সাময়িকভাবে বহিষ্কার করার বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর